Featured Post

Featured

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key 2021

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key || pure tips IObit Uninstaller 10 is an all-in-one uninstallation utility to uninstall software, ...

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key 2021

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key 2021

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key
IObit Uninstaller 10 Pro Free License key || pure tips

IObit Uninstaller 10 is an all-in-one uninstallation utility to uninstall software, bundleware, browser extensions, and Windows Apps for a clean and safe PC.

Iobit Uninstaller is available as a standalone program and part of Advanced SystemCare.

It lets you quickly remove any toolbars, and plug-ins you don’t need. It bundles safe ones under a Trusted heading, but you can still remove them if you wish.

This Windows software supports the un-installation of Windows apps and updates, which means you can uninstall apps, and furthermore, with a single click, you can remove as many apps and windows updates as you want with the help of the “batch uninstall” option.

Also, the software offers a System Restore Point management option, before uninstalling the programs, it will ask you whether you want to create a system restore point.

On your confirmation, it will create a restore point before uninstalling a program so that you can

restore your system to a good status when you uninstall a wrong program or something unexpected happens.

Although Windows OS comes with its own built-in uninstaller, that does a good job of removing unwanted applications.

But, IObit Uninstaller is a better and versatile program that offers more features over the Windows tool,

such as letting you uninstall many apps at once and removing all traces left by the software

you’ve uninstalled, including clearing out registry entries and junk.

Key Features:

  • Remove several programs at once
  • Remove dodgy browser add-ons and unwanted toolbars.
  • Remove windows updates and apps ( including built-in apps)
  • Automatically cleans the junk by uninstalled programs.
  • File Shredder to dispose of any files permanently.

Overall, IObit Uninstaller is one of the most powerful uninstallers to remove unwanted apps and Toolbars.

For a more thorough uninstall, try it which is available as a free and paid (Pro) edition.

IObit Uninstaller 10 Pro Free License key 2021 : - 

License #1: D3EFA-ACE9E-C1983-85DT0 (version 10.x, updated: Dec 22, 2020)

License #2: 7206E-3D337-FC9DF-CCAT0 (version 10.x, updated: Dec 03, 2020)

License #3: 62F27-5FDEB-790A9-923T0 (version 10.x, updated: Dec 03, 2020)

License #4: 5BF10-497AB-B9871-EEFB0 (version 10.x, updated: Oct 16, 2020).

Upwork readiness test answer 2020 | Upwork Test for Rising talent

Upwork readiness test answer 2020 | Upwork Test for Rising talent

Upwork readiness test answer 2020

Which items help you create a 100% complete profile? (Please check all that apply.)
  • A professional-looking profile photo of yourself
  • A title, overview, and employment history
  • A list of your top skills
  • A portfolio of work
Which of the following statements about starting to work on a job is true?
  • Start the work as soon as the client has sent you a message through Upwork
  • Start the work only once the client has sent you an offer, you have accepted the offer on the platform, and your contract appears in the My Jobs > All Contracts tab
Which of the following statements about your Job Success Score on Upwork are true? (Please check all that apply.)
  • Your Job Success Score measures your client’s satisfaction with your overall work history on Upwork
  • Longer-term relationships are a plus and can help boost your score
  • Jobs with higher earnings weigh more and will have a bigger impact on your score
Which of the following statements about Upwork’s Terms of Service are true? (Please check all that apply.)
  • You commit to keeping client relationships on Upwork for at least 24 months, unless you or your client pays a conversion fee to take the relationship off the marketplace
  • Soliciting or accepting payment from an Upwork client off the platform is a violation of Upwork’s Terms of Service
  • You can only have ONE Upwork account. This one account gives you access to any account type you may need including: freelancer, client, agency
  • You can share your account credentials with other users
What are the best practices for submitting a winning proposal through Upwork? (Please check all that apply.)
  • Write a personal and professional greeting
  • Describe your relevant experience in key areas listed in the job post – demonstrate you’ve read it
  • Outline how you would approach and complete the job
  • Respond to any screening questions listed in the job post
  • Copy and paste your proposal to submit as many proposals as possible in a short time
Which of the following describes your responsiveness score? (Please check all that apply.)
  • Your responsiveness score is based on how quickly you respond to (accept/decline) clients’ invitations to jobs
  • Your responsiveness score appears on your profile for clients to see
How does Upwork’s Payment Protection for fixed price jobs work (using Escrow)?
  • The client deposits (pre-funds) a milestone payment into escrow before you begin working. upon receiving and approving the work, the client releases the payment to you
  • You proactively begin working before the client has created and funded a milestone
What do you need to qualify for Upwork’s Payment Protection for hourly jobs? (Please check all that apply.)
  • You must have an hourly contract
  • You must have a client with a verified billing method
  • You must log your hours with the Upwork Desktop App
  • You must write out activities performed in the Work Diary with memos or activities labels
  • You must exceed the contract’s weekly time limit set by the client
Which are requirements to achieve Top Rated freelancer status on Upwork? (Please check all that apply.)
  • Job Success score of 90%+
  • $1,000 earnings in the past year
  • 100% complete profile
  • Up-to-date availability status
  • Passed interview with an Upwork representative
  • No recent account holds
To prevent falling victim to payment scams, which tips should you follow to protect yourself from suspicious activities?
  • Share your bank information with your client
  • Accept mailed checks from your client
  • Contact Upwork’s customer support when a client offers to pay you directly via PayPal, Western Union, or another method outside of the Upwork payments system
  • Accept a job where the client asks you to pay money to get a job
Disclaimer: The purpose to provide the answer is for the educational purpose if any official Authority have an issue , Kindly  Contact Us .
ফাইভারে নতুন প্রোফাইল এবং গিগ তৈরি করে পাবলিশ করার পর সেটা সার্চ লিস্টে শো করতে কম বেশি সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা সময় লাগে

ফাইভারে নতুন প্রোফাইল এবং গিগ তৈরি করে পাবলিশ করার পর সেটা সার্চ লিস্টে শো করতে কম বেশি সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা সময় লাগে

creating-and-publishing-new-gigs-on-fiverr

ফাইভারে নতুন প্রোফাইল এবং গিগ তৈরি করে পাবলিশ করার পর সেটা সার্চ লিস্টে শো করতে কম বেশি সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা সময় লাগে। তবে ভাগ্য ভাল হলে অনেকের টা সাথে সাথেই সার্চ রেজাল্টে চলে আসে। সার্চ রেজাল্টে আসার পর সেটা রেঙ্কিং ঠিক করা এবং সেখান থেকে প্রথম অর্ডার পাওয়ার জন্য একটু বেশিই অপেক্ষা করা লাগে। কারো জন্য সেই অপেক্ষা ১-২ দিন, কারো ১০-১৫ দিন বা কারো হয়তো ৬ মাসের বেশি। সব কিছু আপনার ভাগ্য এবং পারিপার্শ্বিক অন্যান্য বিষয় মিলে বিবেচিত হয়।

আপনি ইচ্ছে করলেই এতদিন অপেক্ষা না করেও যেদিন গিগ পাবলিশ করেছেন সেদিন থেকেই হয়তো আপনার অর্ডার পাওয়া শুরু করতে পারেন। আর সেটা হল Buyer Request এ Apply করার মাধ্যমে। আমার প্রথম অর্ডার Buyer Request থেকেই পেয়েছিলাম। Buyer Request এ কিভাবে Apply করবেন সেটা জানার জন্য ইউটিউবে অসংখ্য ভিডিও আছে। একটু খুঁজে দেখে নিতে পারেন। How to apply buyer request in fiverr লিখে সার্চ দিলেই হবে। তবে সেই ভিডিও গুলোতে যে জিনিসটা শিখানো হয় সেটা হল নিজে ফেক বায়ার সেজে ফেক জব পোষ্ট করা এবং অন্য সেলারদের রেসপন্স থেকে ম্যাসেজ লিখার আইডিয়া কপি করা। আমার কাছে এটা ফালতু একটা বিষয় মনে হয়। আমি নিজে এরকম বায়ার রিকুয়েস্ট পেলে Apply করার পর যদি দেখি সে একজন নতুন সেলার, আমি তার আইডিতে রিপোর্ট মেরে দেই।

Buyer Request এ ম্যাসেজ লেখা নতুনদের জন্য বিরাট একটা সমস্যা! আমি নিজেও যখন নতুন ছিলাম তখন অনেক কিনফিউসনে থাকতাম এই বিষয় নিয়ে। তাই নতুনদের জন্য কিছু লিখলাম নিজের অভিজ্ঞতা থেকে। আশাকরি অনেকের উপকারে আসবে।

প্রথমে বলি বায়ার রিকুয়েস্ট পাবেন কখন?

সাধারনত বাইরের দেশে সকালে, দুপুরে, সন্ধায় বায়াররা জব পোষ্ট করে। সেই অনুযায়ী ওদের সকাল মানে আমাদের সন্ধ্যা ৬-৯ টা, ওদের দুপুর বা লাঞ্চ আওয়ার মানে আমাদের রাত ১-৩ টা, ওদের সন্ধ্যা বা রাত মানে আমাদের সকালে ৯-১১ টা। এই সময় গুলো ছাড়াও অন্য সময়েও দেখতে পারেন যদি কোন Buyer Request পাওয়া যায়।এবার আসি বায়ার কে কি ম্যাসেজ লিখবেন সে বিষয়ে। বায়ার রিকুয়েস্টে কখনোই রবোটিক টাইপ কিছু লিখবেন না। মানে টেক্সট পড়লেই যেন মনে না হয় যে এটা রোবট লিখছে। এরকম রিকুয়েস্ট হাজারটা পাঠালেও লাভ হবে না।

সবার আগে মনোযোগ দিয়ে বায়ার কি লিখেছে সেটা পড়ুন। সে কি কাজ করাতে চাচ্ছে সেটা আগে বুঝুন। আপনি সেই কাজ ভাল মতো পারেন কিনা সেটা দেখুন। কাজ টি তার কতদিনের মধ্যে লাগবে সেটা দেখুন। সব কিছু দেখে যদি বুঝেন যে আপনি পারবেন তাহলে এবার রিকুয়েস্টে এপ্লাই করেন।

কি লিখবেন?

এমন কিছু যেটা আর বাকি ১০ জনের থেকে আলাদা। এমন কিছু যেটা চোখে পড়া মাত্র রবোটিক মনে হবে না। এমন কিছু যেটা পরে বায়ার আপনার প্রোফাইলে আসতে বাধ্য হবে। যেটা দেখে মনে হবে আপনি আসলেই বায়ারের কি রিকুয়েস্ট ছিল সেটা মনোযোগ দিয়ে পড়েই তার কাজের জন্য এপ্লাই করেছেন।
এগুলোর যথাযথ না থাকলেই বায়ার আপনার পাঠানো প্রপোজাল না পড়েই বাদ দিয়ে দিবে। কারন আপনি বাকিদের মতই একই ধরনের মুখস্ত করা কমন লেখা লিখছেন।

নিচের Buyer Request টি খেয়াল করেন-

I am interested in preparing a two-sided brochure that contains a conference schedule, map, and notes section. I have example design. Can you turn this around in one-two days in psd format?

এখানে বলা হচ্ছে যে তার ডাবল সাইডের একটা Brochure ডিজাইন লাগবে কোন একটা কনফারেন্স শিডিউল এর জন্য এবং সেটা তার ১/২ দিনের মধ্যেই লাগবে। সাথে সে একটা স্যাম্পল ডিজাইন এড করে দিয়েছে যেটা দেখে আপনি আইডিয়া পাবেন তার কি রকম ডিজাইন পছন্দ। তার ডিজাইনের সোর্স ফাইল লাগবে psd ফরমেটে।

এখন আপনি কি লিখবেন?

Hi Sir/Madam, I am তমুক। I can do your work. please give me the order. I am new please give the order. I will satisfy you with my work. হেন তেন হাবি যাবি ব্লা ব্লা ব্লা... লাভ নাই। এভাবে লিখি বলেই ঘোড়ার ডিম পাই। কাজ আর পাই না।

আপনি লিখতে পারেন এভাবে...

Hi, I just saw your job post that you are looking for a DOUBLE Side BROCHURE for your conference Schedule. I have seen your attachment. I can make that brochure design within a FEW HOURS in PSD Format. And I will charge (আপনার বাজেট লিখবেন) for that. If its ok for you then please INBOX ME for further discussion. I will be happy to help you. Here’s my portfolio: (আপনার পোর্টফলিও লিঙ্ক দিবেন) Thank you.
এরকম ভাবে লিখলে বায়ার বুঝবে যে আপনি আসলেই তার লিখা ভাল মতো পড়েছেন। তখন সে আপনাকে নক করতে বাধ্য যদি আপনার কপাল ভাল হয়। আপনার লেখায় প্রধান যে বিষয় গুলো সেগুলো Capital Letter এ লিখে দিবেন যেমন টা আমার উপরের লেখায় আছে। তাতে মেইন জিনিস গুলো বায়ারের দৃষ্টি আকর্ষণ করবে। যেমন- সময়, বাজেট, কি ডিজাইন করবেন, আপনাকে ইনবক্স করতে বলা এসব জিনিস Capital করে দিবেন।

আরেকটা সমস্যা হল ফাইভারে বায়ার রিকুয়েস্ট বেশিক্ষণ থাকে না। তাই এত কিছু লিখে সাথে সাথে সেন্ড করা সম্ভব হবে না। তাই আপনি আগে থেকেই এরকম ৩/৪ টা ডেমো টেক্সট লিখে ওয়ার্ড ফাইলে সেভ করে রাখতে পারেন। রিকুয়েস্ট পড়ে সেই মতো শুধু ডিজাইনের নাম আর সময় বা বাজেট এগুলো পরিবর্তন করে সেন্ড করে দিবেন কপি পেস্ট করে। কিভাবে সেন্ড করবেন সেটার জন্য ভিডিও দেখার কথা শুরুতেই বলেছিলাম।

তবে একই টেক্সট এক নাগারে অনেক দিন ব্যাবহার করবেন না। লেখার ধরন চেঞ্জ করবেন। একই কথা অন্য ভাবে ঘুরায় লিখে নতুন করে আবার ৩/৪ টা তৈরি করবেন।

বায়ার কে Sir/ Madam কিছু বলার দরকার নাই। সে আপনার Boss না যে তাকে Sir/Madam ডেকে ডেকে মুখে ফেনা তুলে ফেলবেন। Hi বা Hi there বা Hello দিয়ে শুরু করতে পারেন। বায়ার কে Boss নয় বন্ধুর মতো ভাবুন। তাহলে কাজ করতে সুবিধা হবে।

সবশেষে বলবো ইংলিশে ভাল হতে হবে। ইংলিশ বোঝা এবং ইংলিশে লেখার জন্য যত টুক ভাল হওয়া প্রয়োজন ঠিক ততটুকই ভাল হতে হবে। তার চেয়ে বেশি হতে পারলে আরও ভাল। কারন আপনি সুন্দর বায়ার রিকুয়েস্ট লিখলেন কিন্তু তাতে ১০১ টা গ্রামাটিকেল ভুল করে আছেন। তখন কোন লাভ হবে না কিন্তু। বায়ার আপনার ভুল ইংলিশ দেখেই দৌড় দিবে সে আপনি তারে কাজ মাগনা করে দেয়ার অফার ই দেন না কেন! সো ইংলিশ এখানে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

আরেকটা কথা আমি যে ডেমো টেক্সট লিখে দিলাম এটাই আবার সবাই কপি পেস্ট করে দেয়া শুরু করবেন না কিন্তু। এটার মতো করে নিজের ব্রেইন কাজে লাগিয়ে নিজের মতো করে কিছু লিখবেন।

সব কিছু আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে লেখা। সো ভুল থাকাটা অস্বাভাবিক কিছু নয়। কমেন্ট বক্স তো খোলাই আছে...লিখতে পারেন!

লেখাটি ভাল লাগলে অবশ্যই শেয়ার করুন যাতে অন্যরাও কিছু শিখতে পারে।
ফ্রিল্যান্সিং এর সেরা কয়েকটি কাজ

ফ্রিল্যান্সিং এর সেরা কয়েকটি কাজ


ফ্রিল্যান্সিং এর সেরা কয়েকটি কাজঃ

১) গ্রাফিক ডিজাইন (Graphic Design)
২) ওয়েব-ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট-(Web Design & Development)
৩) সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (Search Engine Optimization)
৪) অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট (App Development)
৫) অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং (Affiliate Marketing)
৬) ইমেইল মার্কেটিং (Email Marketing)
৭) ভিডিও এডিটিং (Video Editing)
৮) আর্টিকেল রাইটিং (Article Writing)

১) গ্রাফিক ডিজাইন

যেকোন কোম্পানীর লোগো, ব্রুশিয়ার থেকে শুরু করে অন্যান্য প্রিন্টিং জাতীয় সকল প্রোডাক্ট গ্রাফিক ডিজাইনাররা তৈরি করেন। আবার ওয়েব ডিজাইনের শুরুতে কিংবা ভিডিও এডিটিংয়ের কাজে কিংবা অ্যানিমেশন প্রজেক্টের ক্ষেত্রেও গ্রাফিক ডিজাইনারদের প্রয়োজন। এমনকি এসইও প্রজেক্টের ক্ষেত্রেও গ্রাফিক ডিজাইনারদের সাহায্য প্রয়োজন হয়। গ্রাফিক ডিজাইনারদের চাহিদা কেমন এটুকু তথ্যই তার জন্য যথেষ্ট।

২) ওয়েব ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট

আধুনিকযুগে প্রতিটা প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে দাড়িয়েছে। এছাড়া অনলাইনে তৈরি হচ্ছে নিউজ পোর্টাল, কমিউনিটি সাইট, টিভি, ব্লগসহ আরও বিভিন্ন ধরনের ওয়েব সাইট। এক হিসেব অনুযায়ি সারাবিশ্বে প্রতি মিনিটে ৫৬২টি করে নতুন ওয়েব সাইট চালু হচ্ছে। আশা করছি এই তথ্যটি ওয়েব ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের কাজের সম্ভাবনা বুঝতে আরও সহজ করে দিবে। মার্কেটপ্লেস গুলোতে ওয়েব ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কিত কাজগুলোর প্রতি ঘন্টার রেট গ্রাফিক কিংবা এসইও সম্পর্কিত কাজের তুলনায় বেশি হয়ে থাকে।

৩) সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বা এসইও

বর্তমানে লোকজন তাদের বেশির ভাগ প্রয়োজনীয় বিষয় গুলো খুজে বের করার জন্য গুগলে সার্চ করে। গুগল এর উপর নির্ভরশীলতা মানুষের দৈনন্দিন কাজকে আরও বেশি সহজ করে দিচ্ছে। যদি কোন কোম্পানী তার সার্ভিস কিংবা প্রোডাক্টকে সম্ভাব্য ক্রেতার সার্চের সময় চোখের সামনে নিয়ে আসতে পারে, তাহলে ঐ সার্ভিসটি বিক্রি হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যায়। আর এই কাজটিকেই বলে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, সংক্ষেপে এসইও। বর্তমানে অনলাইনে মানুষের নির্ভরশীলতা বেড়ে যাওয়ার কারণে সকল কোম্পানী তাদের সার্ভিসকে প্রচারের জন্য অনলাইনকেই সব চাইতে বেশি ব্যবহার করছে। আর সেজন্য যেকোন প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক ভাবে উন্নতির জন্য এসইও এক্সপার্টদের উপর নির্ভর করতে হচ্ছে। এসইও এক্সাপার্টদের কাজের ক্ষেত্র গুলো সেজন্য অনেক বেশি।

৪) অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট

যাদের প্রোগ্রামিংয়ে মোটামুটি ধারণা আছে, তাদের জন্য আমার সব সময়ের পরামর্শ থাকে অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট শিখে নিন। স্মার্ট ফোনের ব্যবহার বেড়ে যাচ্ছে মানে অ্যাপস ডেভেলপারদের চাহিদাও বেড়ে যাচ্ছে। ভবিষ্যতে এই সেক্টরটির চাহিদা অনেক বেড়ে যাবে। মার্কেটপ্লেস গুলোতে এই ধরনের কাজের প্রতিযোগীতা কম থাকে এবং কাজের প্রতি ঘন্টা রেটও অনেক বেশি হয়।

৫) অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

কোন প্রতিষ্ঠান এর অনুমতি নিয়ে তাদের মার্কেটিং করে দিলে এবং সেক্ষেত্রে প্রতিটা প্রোডাক্ট কিংবা সার্ভিসের বিক্রির টাকা হতে একটা অংশ পেলে এই বিষয়টিকে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং বলে। আন্তর্জাতিক ভাবে অনেক বড় বড় প্রতিষ্ঠান তাদের ব্যবসাকে আরো বেশি বড় করার জন্য অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সিস্টেম চালু রেখেছে। আমাদের দেশে অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট, ক্লিক ব্যাংক অ্যাফিলিয়েট অনেক বেশি জনপ্রিয়।

৬) ইমেইল মার্কেটিং

অনলাইনে মার্কেটিং এর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম হচ্ছে ইমেইল মার্কেটিং। মার্কেটপ্লেসে আয়, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিংয়ে সফলতার জন্য, কিংবা নিজের বা অন্যের কোন ব্যবসার প্রমোশনের কাজের জন্য ইমেইল মার্কেটিং শিখতে পারেন। কিংবা গ্রাফিক ডিজাইন, ওয়েব ডিজাইন ইত্যাদির কাজ পাওয়ার জন্য ইমেইল মার্কেটিং এর জ্ঞানটি অনেক বেশি উপকারে আসবে।

৭) ভিডিও এডিটিং

যারা ভিডিও তৈরি কিংবা এডিটিং সম্পর্কিত কাজ জানেন, তারাও অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ার দিকে নজর দিতে পারেন। কারণ এসইও, অ্যাডসেন্স থেকে আয় কিংবা অ্যাফিলিয়েশনের আয়ের জন্য বর্তমানে ভিডিও এডিটিংয়ের কাজ জানা থাকলে অনেক ভাল করতে পারবেন। আর বর্তমানে একটা অংশ গুগলে কোন কিছু সার্চ না দিয়ে ইউটিউবেই সার্চ দেয় বেশি। ইউটিউবে সার্চ বৃদ্ধি পাচ্ছে মানে ভিডিও এডিটিংয়ের জ্ঞান এখন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে।

৮) আর্টিকেল রাইটিং

ইংরেজি জ্ঞান ভাল থাকলে আর লেখালেখির অভ্যাস থাকলে শুধুমাত্র আর্টিকেল রাইটার হিসেবেই অনলাইনে অনেক ব্যস্ত ক্যারিয়ার গড়ে তোলা সম্ভব। মার্কেটপ্লেস গুলো আর্টিকেল রাইটিং, রিরাইটিং সম্পর্কিত কাজ গুলো অনেক বেশি থাকে। তাছাড়া এই অভ্যাসকে কাজে লাগিয়ে ব্লগিং করার মাধ্যমেও আয় করা যায়।

উপরে মূলত প্রধান কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। আরো অনেক বিষয় আছে যেগুলো শিখেও অনলাইনে ভাল ক্যারিয়ার গড়ে তোলা সম্ভব। এই কাজ গুলো পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস রয়েছে। তাছাড়া সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে, ব্লগিং করে কিংবা ইমেইল মার্কেটিংয়ের মাধ্যমেও অনেক ক্লায়েন্ট পাওয়া যায়।
কেন আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ অলাইনে অসফল

কেন আমাদের দেশের বেশিরভাগ মানুষ অলাইনে অসফল


মূলত এই কারণটার জন্য সবার প্রথমে আমি দায়ী করবো অজ্ঞতাকে কারণ ‍আমাদের দেশের বেশির ভাগ মানুষই আনলাইনে আয়ের ব্যাপারে বেশ অজ্ঞ । তাদের এই ব্যাপারটাতে বেশ দুর্বলতা রয়েছে। তারা অনেকে জানেই না যে কিভাবে অনলাইনে আয় করতে হয় ।

জানে না কিভাবে সঠিকভাবে কাজ শিখতে হয় এবং কোথা থেকে শিখতে হয় । রয়েছে সঠিক প্রশিক্ষণের অভাব । তার সাথে রয়েছে আইসিটি যন্ত্রপাতি সঠিকভাবে ব্যবহার করতে না পারার জ্ঞান।

এখন অবশ্য এসব ব্যাপারে মানুষ বেশ সচেতন হচ্ছে এবং আমাদের সরকার ও এ বিষটিকে বেশ গুরুত্বসহকারে নিয়েছেন।

এবং অনেকেই সঠিকভাবে প্রশিক্ষণ নিয়ে বেশ ভালো পরিমাণ আয় ও করছে এবং অনেক নতুন শুরু করছেন ।

অজ্ঞতার ব্যাপাটার পরে রয়েছে কি কাজ শিখবো সেটা নিয়ে ধিদা দন্ধ। বেশিরভাগ মানুষেরেই এই ব্যপারটার উপর ৬০% সফল হওয়া না হওয়ার প্রভাব রয়েছে।

অনেকে অনলাইনে কয়েকটা রিভিউ দেখে কাজে লেগে পরে । কোন কাজটা ভালো কিসের চাহিদা বেশি কি কাজ করলে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে কোন কাজের ইনকাম কেমন। এ রকম কয়েকটা রিভিউ দেখেই বেশিরভাগ কজে নেমে পরে এখানেই করে প্রথম ভূলটা ।

কি অবাক হলেন, অচ্ছা বুজিয়ে বলছি ধরুন আপনি সব খুজে পেলেন গ্রাফ্রিক্সডিজাইন ও ওয়েবডিজাইন বেশ ভালো কাজ, যার যেমন চাহিদা রয়েছে তেমনি রয়েছে বেশ ভালো টাকা ইনকাম করার সম্ভাবনা ।

কিন্তু প্রথমে তো আপনি দুইটাই শিখতে পারবেন না আপনাকে যেকোন একটা বেছে নিতে হবে আর এই জায়গাইতেই পরি আমরা সবচেয়ে বড় সমস্যায় কারণ হলো আমরা না বুঝে অনতাজে যে কোন একটা শিখা শুরু করি কারণ কাজ দুইটাই বেশ ভালো দুইটাই বেশ ভালো আয় হয়। এই ব্যাপারট মাথায় নিয়েই আমরা শুরু করি কিন্ত যা সবার ক্ষেত্রে সঠিক বাছাই নাও হতে পারে।

ধরুন আপনি শুরু করলেন ওয়েব ডিজাইন এবং সেটা শিখা শুরু করলেন কিন্তু কিছু দিনপর দেখলেন আপনি কোডিং ভালো পারেন না এবং কোডিং আপনি মনে রাখতে পারেন না এবং অনেক সময় ধরে কম্পিউটারের সামনে বসে বসে কোডিং করার কোন মন মানসিকতা আপনার নেই এবং দীর্ঘ ক্ষণ কাজ করার মত ধৈর্য্য আপনার নেই কিন্তু আপনি বেচে নিলেন ওয়বেডিজাইনকে তাহলে নিশ্চই আপনি সফল হবেন না।

তাই কাজ বাছাইয়ের সময় অবশ্যই আপনাকে কাজের চাহিদার পাশাপাশি অবশ্যই আপনার ভালো লাগা খারাপ লাগার বিষটিও বেশ নজর রাখতে হবে। যা আপনারা বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ভূল সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন।

এরপর রয়েছে পরিশ্রম করতে না পারা

আমাদের দেশের অনেক মানুষের একটি বাজে স্বভাব হলো কম প্ররিশ্রমে কিছু একটা করা । আমরা সবসময়ই অল্প পরিসরে সবকিছু চেয়ে থাকি ।বিশেষ করে ছাত্রসমাজ তারা ভাবে ছোট একটা পরিমান ইনকাম হলেই হবে । কিন্তু আমরা এটা ভাবি না যে এতে আমাদের ভবিষ্যত নষ্ট হচ্ছে । ছাত্রসমাজ তাদের প্রচুর সময় নষ্ট করে এসব করার পিছনে। তারা হয়তো নানা রকম এপ এর মাধ্যমে আয় করতে চায় দেখা গেলো তারা সেখান থেকে খুব কম পরিশ্রমে দিনে ১-২ ডলার ইনকাম ও করতে পারলো কিন্তু বিনিময়ে নিয়ে যাচ্ছে আমাদের এসব ছাত্রসমাজের প্রচুর সময় ।

আপনারা যানেন কিনা একজন দক্ষ কর্মীর ইন্টারনেশনাল এ প্রতি ঘন্টার মার্কেট মূল্য ১০-১০০ ডলার তাহলে কেনো আমরা সারা দিনে ১-২ডলারের জন্য আমাদের সময়কে নষ্ট করবো।

তাই একটু পরিশ্রম হলেও আমরা প্রথমে ভালোভাবে কাজ শিখবো তারপর কাজ করবো । তাহলে আমরা যেমন নিজেরা উন্নত হবো সাথে হবে আমাদের দেশের উন্নয়ন।